একজন ওয়েব ডেভেলপার হওয়ার পিএইচপি ডেভেলপমেন্ট গাইডলাইন – পর্ব ২

আগের আর্টিকেলে আমি বলেছি আপনাকে কিছু পিএইচপি প্রজেক্ট কমপ্লিট করতে হবে তাই আপনি যদি আপনার পিএইচপি প্রজেক্টগুলো কমপ্লিট করে থাকেন তাহলে অবশ্যই আপনাকে প্রজেক্ট এর দক্ষতা গুলো কাজে লাগাতে হবে যাতে করে আপনি আপনার দক্ষতার বিচার করতে পারেন।

তাই আমি বলবো যদি আমার আগের আর্টিকেলের মত করে আপনি সবগুলো বিষয় জেনে থাকেন তাহলে এক্ষুনি ওয়ার্ডপ্রেস নিয়ে ঘাটাঘাটি শুরু করুন।

ওয়ার্ডপ্রেসে কিভাবে পিএইচপির দক্ষতা কাজে লাগাবো?

প্রথমে আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেসের মেকানিজম জানা থাকতে হবে যেমন আপনাকে জানতে হবে ওয়ার্ডপ্রেস কিভাবে কাজ করে ওয়ার্ডপ্রেস কোন ল্যাঙ্গুয়েজ দিয়ে তৈরি করা হয়েছে।

ওয়ার্ডপ্রেসের থিম এবং প্লাগিন নামে দুটি ফিচার আছে যে দুটি ফিচার দ্বারা ওয়ার্ডপ্রেস ওয়েবসাইটের ফ্রন্টেন্ড এবং ব্যাকেন্ড কন্ট্রোল করা যায়।

ওয়ার্ডপ্রেস একটি সিএমএস হওয়ার কারণে এই সেই সিএমএস তৈরি করা হয়েছে পিএইচপি দ্বারা। তাই খুব সহজেই আপনি আপনার পিএইচপি দক্ষতাকে ওয়ার্ডপ্রেসের বিভিন্ন ডেভলপমেন্ট কাজে ব্যবহার করতে পারবেন।

ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট:

যদি আপনার বেসিক পিএইচপি সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকে তাহলে আপনি ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট শুরু করতে পারেন আর সাথে যদি অ্যাডভান্স পিএইচপি মাইএসকিউএল সম্পর্কে ধারণা থাকে তাহলে থিম ডেভেলপমেন্ট বুঝতে আপনার পানির মতো সহজ মনে হবে।

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ডেভেলপমেন্ট:

যদি আপনি ওয়ার্ডপ্রেস থিম ডেভেলপমেন্ট মেকানিজম এবং ওয়ার্ডপ্রেস থিম কিভাবে তৈরি করতে হয় তা বুঝে তৈরি করতে পারেন তারপর আপনার কাজ হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ডেভেলপমেন্ট এ কাজ করা।

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ডেভলপমেন্ট যেমনটা সহজ ঠিক তেমনটা কঠিন তাই আপনাকে অবশ্যই পিএইচপি এডভান্স লেভেল সম্পর্কে ভালো ধারণা থাকতে হবে। যদি পিএসপি এডভান্স লেভেল সম্পর্কে ভালো ধারনা থাকে তখন আপনি আপনার পিএইচপি জ্ঞানকে প্লাগিন ডেভলপমেন্ট এ কাজে লাগিয়ে ছোট ছোট কিছু প্লাগিন তৈরি করুন। ধরুন আপনি আপনার কাস্টম পিএসপি কোডগুলো কে ওয়ার্ডপ্রেস বিল্ট ইন ফাংশন দাঁড়া ওয়ার্ডপ্রেস এনভায়রনমেন্ট ইমপ্লিমেন্ট করুন।

আশা করি তাহলে আপনি বুঝতে পারবেন আপনার পিএইচপি দক্ষতা কতটুকু আপনি কাজে লাগাতে পারছেন।

পিএইচপি অবজেক্ট অরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং :

অবজেক্ট-ওরিয়েন্টেড প্রোগ্রামিং (পিএইচপি ওওপি), পিএইচপি 5-তে যুক্ত হওয়া এক ধরণের প্রোগ্রামিং ভাষার নীতি, যা জটিল, পুনরায় ব্যবহারযোগ্য ওয়েব অ্যাপ্লিকেশন তৈরিতে সহায়তা করে।

আমি এতক্ষন যে পিএইচপি নিয়ে কথা বলেছি সেটি হচ্ছে প্রসিডিউরাল পিএইচপি এখন আমি কথা বলব স্ট্রাকচারাল পিএইচপি নিয়ে যা হচ্ছে অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি।

প্রসিডিউরাল পিএইচপি এবং অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি দুটি আপনার একই কাজ করবে এবং তাদের কাজের ধরন একই কিন্তু প্রসিডিউরাল পিএসপি যেকোনো একটি কাজ কে নির্দিষ্ট করে কাজ করে এবং এই কাজগুলো বারবার ব্যবহার করা কঠিন।
কিন্তু যদি আপনি অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি দিয়ে কোন একটি ওয়েব এপ্লিকেশন তৈরি করেন তাহলে আপনি আপনার কোডের বিভিন্ন অংশকে পুনরায় বিভিন্ন জায়গায় ব্যবহার করতে পারবেন এবং প্যাটার্ন  কোডগুলো ব্যবহার করে আপনি আপনার পোস্টগুলো সাজিয়ে রাখতে পারবেন যাতে করে আপনি আবার আপনার কোডগুলো ব্যবহার করতে পারেন।

প্রসিডিউরাল পিএইচপি থেকে অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি কাজ করার সুবিধা হচ্ছে আপনি আপনার কোডগুলো কে সহজে বারবার ব্যবহার করতে পারবেন এবং আপনার কোড লিখার পরিমাণ কমে যাবে।

 

অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি রিয়েল লাইফ ইমপ্লিমেন্টেশন ঃ

যখন আপনার অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপিতে এর বেসিক ধারণা এবং কনসেপ্ট স্পষ্ট হয়ে যাবে তখন আপনি আবার অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি দিয়ে কিছু প্রজেক্ট তৈরি করার চেষ্টা করুন। তাহলে আপনার অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি এর দক্ষতা আরও বেশি বৃদ্ধি পাবে।

তারপর ওয়ার্ডপ্রেসের প্লাগিন তৈরি করার চেষ্টা করুন অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি জ্ঞানের মাধ্যমে।আমি বারবার আপনাকে ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ডেভলপমেন্ট নিয়ে কাজ করার কথা বলছি হয়তোবা ভাবতে পারেন কেন বলছি?

প্রথমত হচ্ছে ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ডেভেলপমেন্ট এ কাজ করলে আপনার পিএইচপি দক্ষতা অনেক বৃদ্ধি পাবে এবং আপনার মধ্যে অনেক লজিক ডেভেলপ হবে।

ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন ডেভলপমেন্ট এর অনেক রিসোর্স আছে যা আপনার কাজে অনেক বেশি সহায়তা করবে কিন্তু যদি আপনি আপনার দক্ষতা অন্য কোন জায়গায় ব্যাবহার করতে চান তাহলে হয়তোবা রিসোর্স পেতে কষ্ট হতে পারে অথবা রিসোর্সের অভাবে আপনি সঠিক কাজটি উপলব্ধি করতে পারবেন না।

যখন আপনি অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি দিয়ে ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন তৈরি করে ফেলবেন তখন আপনি প্রথমত যে কাজটি করবেন সেটি হচ্ছে যে কোন ওয়ার্ডপ্রেসের অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড প্লাগিন কে এডিট করার চেষ্টা করবেন নিজের মত করে।

যেমন উকমার্স ওয়ার্ডপ্রেস প্লাগিন গুলো তৈরি করা হয় অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড পিএইচপি দিয়ে তাই যদি আপনি একটু কমার্সের প্লাগিনগুলো নিয়ে ঘাটাঘাটি করেন এবং নিজের মতো করে এডিট করার চেষ্টা করেন তাহলে আপনার অবজেক্ট ওরিয়েন্টেড দক্ষতা আরও বৃদ্ধি পাবে।

যদি সম্ভব হয় উকমার্স এর কিছু এক্সটেনশন তৈরি করার চেষ্টা করুন।

জেকোয়েরি এর সাথে পিএসপি সংযুক্ত করা:

যখন আপনি পিএইচপি নিয়ে কাজ করবেন তখন আপনার অবশ্যই জাভাস্ক্রিপ্টের ব্যবহার থাকা লাগবে যা আপনার পিএইচপি ডেভেলপমেন্ট শেখার ক্ষেত্রে অনেক বেশি কাজে লাগবে। জেকোয়েরি অথবা জাভাস্ক্রিপ্টের এই লাইব্রেরীটি আপনার পিএইচপি দ্বারা তৈরিকৃত ফাংশনালিটি গুলোকে আরো ব্যবহারযোগ্য করে তুলবে।তাই জেকোয়েরি, জেসন এবং এজাক্স সম্পর্কে বেসিক ধারনা রাখুন।

জেসনঃ

জেসন হচ্ছে আপনার পিএইচপি এবং মাইএসকিউএল এর দ্বারা যে ডাটাবেজটি তৈরি হয়েছে সেই ডাটাবেজের ডাটা গুলোকে জেকোয়েরি এর মাধ্যমে ইউজারের কাছে দেখাতে পারবে তাছাড়া আপনি বিভিন্ন কিছু আপডেট করতে পারবেন আপনার ডাটাবেজ এর ভিতর জেসন এর মাধ্যমে।

অ্যাজাক্সঃ

অ্যাজাক্স হচ্ছে পিএইচপি এর লোডিং ফিচারটি কে বন্ধ করে আপনাকে রিয়েল টাইম ডাটা ভিউ করাবে। তারমানে আপনার ব্রাউজারের লোডিং ছাড়াই আপনি যেকোনো ডাটা সেকেন্ডের মধ্যেই ভিউ করতে পারবেন।

আশা করি এই আর্টিকেলটি আপনাদের ভালো লাগবে নেক্সট আমি পিসি তে আরো বিভিন্ন কাজ সম্পর্কে ধারণা দিব যাতে করে আপনার পিএইচপি নিয়ে নিজেকে একজন ডেভেলপার হিসেবে পরিচয় দিতে পারেন।

1 Comment
  • Rajib
    Posted at 03:55h, 02 October Reply

    Thank you so much. It’s really helping me a lot.

Post A Comment

name:

phone:

email:

skype:

address:

Interested course: